ভাবনা গুলো এমন কেন?

in BDCommunity2 months ago

বুঝতে পারছি না কিছুই। বেশ কিছুদিন থেকে কোন কিছুই লিখতে ভালো লাগছে না। ফুরিয়ে গেলাম নাকি? ভেতরে লেখার ভাবনা, তাগাদা সব কিছুই অনুপস্থিত হাড়িয়ে ফেলেছি সব কিছুই। আসলে ভাবনা ছাড়া উৎসাহ কেমনে আসবে?

কোন অদ্ভুত কারনে লিখতে একদমেই ইচ্ছা করছে না। শুধু ইদানিং কালে প্রেম বিরহ মৃত্যু এইসব নিয়েই ভাবতে ভালো লাগছে। এর বাইরে তো কোন কিছুই চিন্তা করতে পারছি না। লেখা লেখি তো ছুঁতেই পারছি না। মানুষ হয়েও মানসিক দ্বায়ভার বিমূর্ত হচ্ছে। জীবন থেকে মনে হচ্ছে যৌবনের আঁচ হাড়িয়ে যাচ্ছে।

বেশ কয়েকবার লিখতে বসেও কিবোর্ডের ব্যাক স্পেস চেপে ধরে সব মুছে ফেলেছি। মনের সাথে খাপ খাচ্ছিল না। আচ্ছা এমনটা কি সবার হয়? আমার কিন্তু প্রায় মাঝে মধ্যে এমনটা হয়। তখন ইচ্ছা করে যদি পৃথিবীর বাইরে গিয়ে নির্জনে কোন গ্রহ বা উপগ্রহে একাকিত্ব সময় কাটাতে পারতাম।

নিজেকে প্রশ্ন করি আমি কে? কি আমার অর্জন? এই অর্জনেরই বা ভবিষ্যত কি? একদিন তো সব ছেড়ে মাটিতে মিসে যেতে হবে।পোকা মাকড়ের বেশ কিছুদিনের আহার হবে এই তো শেষ। জীবনের এতো পরিকল্পনা কিসের জন্য? ভোগ করতে পারবো তো? এক মিনিটেরও তো নিশ্চয়তা নাই।

জীবন নাকি একটা সরল অংক যত দিন যায় ততোই নাকি সমাধানের দিকে আগায়। কিন্তু আমার তো মনে হচ্ছে ঠিক উল্টো যত দিন যাচ্ছে তত জটিল হতে জটিলতর হচ্ছে। যেই অঙ্কের হিসেব ভূল হলে আর রাবার দিয়ে মুছে দেওয়া যায় না। হয়তো আবার নতুন করে শুরু করতে হয়। আমরা চাইলেও কখনো পিছন থেকে আবার শুরু করতে পারবো না আমাদের সামনেই শুধু আগাতে হয়। এই আগানোর শেষ পরিনতি কিন্তু ঐ মৃত্যু। মৃত্যুর পর বেঁচে থাকার আকর কি কোন উপায় নেই?

আছে, মৃত্যুর পরেও বেঁচে থাকা যায়। এই বেঁচে থাকাটাই প্রকৃত বেঁচে থাকা। এই বেঁচে থাকাটাই আমাদের জীবনের প্রকৃত লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হওয়া উচিত। ক্ষণস্থায়ী এই জীবনকে মৃত্যুর পর দীর্ঘস্থায়ী করাটাই হচ্ছে সৃষ্টিকর্তার প্রকৃত উদ্দেশ্য ছিল আমাদের সৃষ্টি করা। বেঁচে থাকতেই ভালো কিছু দৃষ্টান্ত স্থাপন করা। সমাজে ভালোবাসা প্রতিষ্ঠা করা। সমাজের জন্য ভালো কিছু প্রতিষ্ঠার মাধ্যমেই একমাত্র মৃত্যুর পরেও বেঁচে থাকা যায়।

আচ্ছা টাকা পয়শা ইনকাম, খাওয়া দাওয়া, ঘুরা ফেরা বাদে আমরা এমন কি কিছু করেছি যেটা তে মানুষ আমাকে মৃত্যুর পরেও মনে রাখবে। এমন একটা কাজও কি করেছি যেটাতে আমার অবর্তমানে অন্যরা আমাকে স্মরণ করবে। এমনটা প্রশ্ন নিজেকে আমরা করতে পারি না কেন?

ধুর ছাই, কি সব আবোল তাবোল বকছি। আমরা নিজেকে নিয়ে ভাবতেই কোন কূল কিনারা খুঁজে পাচ্ছি না আর অন্যের জন্য ভাবতে যাবো। এই জীবন বেঁচে থাকা নিয়েই টেনশনে আছি আর মৃত্যুর পর বেঁচে থাকা টেনশন কে করতে যাবে। মৃত্যুর পর হয় মাটিতে মিশে যাবো আর নেই তো ভূত হোকে ইধার উধার ভাটাকতে রাহেঙ্গে।

20210518_153431.jpg